অনলাইন ইনকাম এপস ২০২৩ | ৫টি ভালো অ্যাপস দিয়ে কাজ করুন

অনলাইন ইনকাম এপস হল এক ধরনের আর্থিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার অ্যাপ যা আপনাকে আপনার আর্থিক ব্যবস্থাপনায় সাহায্য করে

Advertisement
Google News Ad Google News Ad
। এগুলি অন্যান্য অ্যাপগুলির মতো যা আপনাকে আপনার বাজেট পরিচালনা করতে এবং সংরক্ষণ করতে সহায়তা করে৷ যাইহোক, যারা অনলাইন ইনকাম এপস দিয়ে আয় করতে চান, তাদের জন্য এখানে কিছু ভালো মোবাইল এপস রয়েছে। এই এপসগুলো আপনার ব্যয়ের অভ্যাসগুলির আরও গভীর বিশ্লেষণ প্রদান করে এবং কীভাবে এপস গুলো ব্যবহার করে আয় করা যায় সে সম্পর্কে আপনাকে পরামর্শ দেয়।

অনলাইন আয়ের অ্যাপগুলিতে সাধারণত বিভিন্ন ধরণের বৈশিষ্ট্য থাকে যা অ্যাপ থেকে অ্যাপে পরিবর্তিত হয়। কিছু অনলাইন আয়ের অ্যাপ বিনামূল্যে ট্রায়ালের সময় অফার করে, তাই আপনি কাজ শুরু করার আগে তাদের এপস পরীক্ষা করতে পারেন। যদি ঠিক থাকে তাহলে এটি ব্যবহার করে আয় করার জন্য আপনাকে একটি ছোট ফি দিতে হবে বা ট্রায়ালের মেয়াদ শেষ হওয়ার পরে অ্যাক্সেসের জন্য সদস্যতা নিতে হবে।

কিছু অনলাইন আয়ের অ্যাপে শপিং লিস্ট, মুদি কুপন, খাবার পরিকল্পনা, খাবার প্রিপিং গাইড, খাবার তৈরির রেসিপি, খাবার তৈরির টিপস এবং আরও অনেক কিছুর মতো অন্যান্য সুবিধাজনক বৈশিষ্ট্যও অন্তর্ভুক্ত থাকে! প্রত্যেকে তার ব্যবহারকারীদের জন্য আলাদা কিছু অফার করে যাতে এটি ব্যবহার করে অনলাইন ইনকাম এপস দিয়ে সবাই ইনকাম করতে পারেন

অনলাইন ইনকাম অ্যাপস ২০২৩ | অনলাইন ইনকাম এপস

সেরা অনলাইন আয়ের এপস গুলো হল সেইগুলো যেগুলি আপনাকে আয়ের একাধিক স্ট্রিম প্রদান করে। বেশিরভাগ সময়, এই অ্যাপগুলির কিছু টাকা সদস্যতা ফি থাকে। এর কারণ হল তারা নিশ্চিত করতে চায় যে তারা তাদের অ্যাপের সদস্যদের দ্বারা অর্থ প্রদান করা চালিয়ে যাচ্ছে। যদি তারা তা না করে, তাহলে অ্যাপে যোগদানকারী নতুন গ্রাহকদের কাছ থেকে পাওয়া সম্ভাব্য রাজস্ব হারাবে।

আরও পড়ুন:   মোবাইল দিয়ে টাকা ইনকাম করার ৭টি উপায় ও লাভজনক টিপস

এই সমস্যাটি মোকাবেলা করার সর্বোত্তম উপায় হল নিশ্চিত করা যে আপনি একবারে একাধিক ভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। যাতে আপনি আপনার কন্টেন্ট বা দক্ষতার ক্ষেত্রে যতটা সম্ভব আয় করতে পারেন। এছাড়াও আপনার চেষ্টা করা উচিত এবং এমন অ্যাপ্লিকেশনগুলি খুঁজে পাওয়া উচিত যা প্রশিক্ষণ কোর্স বা আপনার কন্টেন্টের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য পণ্য সরবরাহ করে। যাতে আপনি সেগুলি ইবে বা অ্যামাজনে বিক্রি করতে পারেন।

৫টি অনলাইন ইনকাম এপস

এখানে প্রচুর অনলাইন আয়ের অ্যাপ রয়েছে, কিন্তু সেগুলির বেশিরভাগই আপনার সময় এবং প্রচেষ্টার মূল্য দেয় না।

আমি অনেক অ্যাপ পরীক্ষা করেছি, এবং এখানে আমি খুঁজে পেয়েছি সেরা অনলাইন ইনকাম এপস:

ShopUp Reseller

ShopUp Reseller হচ্ছে বাংলাদেশের মধ্যে জনপ্রিয় একটি অনলাইন প্লাটফর্ম, যেখানে আপনি অনলাইনে কাজ করেই অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। ShopUp Reseller থেকে অর্থ উপার্জন করার জন্য প্রথমে আপনার মোবাইলের মধ্যে ShopUp Reseller যে অ্যাপটি রয়েছে, সেই অ্যাপটি ইন্সটল করে নিতে হবে।

ইন্সটল করার পরে অ্যাপটিতে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। রেজিস্ট্রেশন করার পরেই অ্যাপ থেকে পছন্দের পণ্য বাছাই করে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে অথবা আপনার ব্যক্তিগত ওয়েবসাইটের মধ্যেই প্রমোট করতে হবে। যার মাধ্যমে আপনি এখান থেকে অনলাইনে পণ্য বিক্রি করে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন।

মোবাইল দিয়ে ইনকাম করার জন্য এটি বিশ্বস্ত একটি রিসেলিং অ্যাপ। এই অ্যাপটি খুবই জনপ্রিয়। এটা নিয়ে ইতিমধ্যে আমরা কয়েকটি ভিডিও আপলোড করেছি। যে ভিডিওগুলো দেখে দেখে আপনারা শিখতে পারেন, কিভাবে একজন শপআপ রেসেলার হিসেবে কাজ করে অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে হয়।

Daraz

দারাজ অনলাইন ইনকাম এপস এর মধ্যে ShopUp Reseller এর সুবিধা রয়েছে। এমনকি আপনি চাইলে দারাজ বিজনেস পার্টনার হিসেবেও রেজিস্ট্রেশন করে দারাস অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করতে পারেন। দারাজ অ্যাপটি মধ্যে খুব সহজেই ফিচার গুলো রয়েছে। দারাজ অনলাইন ইনকাম এপস ইন্সটল করে দারাজ অ্যাপ ব্যবহার করে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করতে পারেন।

মোবাইল দিয়ে দারাজ অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করতে গেলে আপনি কয়েকটি মাধ্যম ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমত আপনি দারাজ এফিলিয়েট যে সিস্টেমটি রয়েছে, সে সিস্টেমটি ব্যবহার করে অনলাইন থেকে মোবাইল দিয়ে ইনকাম করতে পারবেন। এই মোবাইল অ্যাপটি ব্যবহার করতে হলে আপনাকে অবশ্যই আপনার মোবাইলের কোয়ালিটি ভালো রাখতে হবে। যেন এই অ্যাপটি আপনার মোবাইলে সুন্দরভাবে ইন্সটল করতে পারেন।

আরও পড়ুন:   অনলাইন গেম খেলে টাকা ইনকাম  2024 | ১২ টি সেরা গেমস

দারাজের এপসটি প্লেস্টোর থেকে ইন্সটল করার পরে আপনাকে অ্যাপসের সিস্টেম ব্যবহার করে ইনকাম করতে চান, সেটির জন্য আবেদন করতে হবে। যেমন ধরুন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং, দারাজ হোলসেলার, দারাজ বিজনেস পার্টনার, ইত্যাদি।

FoodPanda

খাবার বিক্রি করে অনলাইনে মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করার জন্য ফুড ফান্ডা হচ্ছে জনপ্রিয় একটি মোবাইল অ্যাপ। আপনি চাইলে ঘরে বসে খাবার রান্না করে সেগুলো ফুড ফান্ডা এপসের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন।

মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করার জন্য যেই মাধ্যমগুলো রয়েছে, তার মধ্যে খুব জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে ফুটফান্ডাতে খাবার বিক্রি করা। আপনি যদি ফুড ফান্ডা সম্পর্কে না জানেন, তাহলে এখনই গুগল প্লে স্টোর থেকেই ফুড ফান্ডার যে মোবাইল অ্যাপটি রয়েছে সেটি ইন্সটল করে ফেলুন। ফুড ফান্ডা মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে খাবার বিক্রি করে আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

বিশেষ করে শহর এরিয়াতে আপনি যদি থাকেন, তাহলে ফুড ফান্ডা আপনার জন্য খুবই স্মার্ট একটি মোবাইল অ্যাপ। যার মাধ্যমে আপনি অনলাইন থেকে ইনকাম করার বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা পাবেন। আপনি চাইলে একজন ফুড রাধুনী হিসেবে অথবা ফুড ডেলিভারি ম্যান হিসেবে কাজ করতে পারেন।

Pathao

ফুড ফান্ডা এপস এর মতোই পাঠাও হচ্ছে আরেকটি রাইট শেয়ারিং অ্যাপস। যেটা ব্যবহার করে আপনি অনলাইন থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। প্রথমে আপনার মোবাইলের মধ্যে পাঠাও অ্যাপটাকে ইন্সটল করে নিতে হবে। এরপরে তথ্য দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। পাঠাও এর মাধ্যমে আপনি কয়েকটি পদ্ধতিতে ইনকাম করতে পারেন।

প্রথমত আপনি পাঠাও রাইট শেয়ারিং হিসেবে ইনকাম করতে পারবেন। পাঠাও রাইডার হিসেবে যদি আপনি কাজ করতে না চান, তাহলে পাঠাও ডেলিভারি ম্যান হিসেবে আপনি কাজ করতে পারবেন। পাঠাও ফুড ফান্ডার মত একটি ডেলিভারি সিস্টেম রয়েছে। যেটার মাধ্যমে আপনি অনলাইন থেকে মোবাইল অ্যাপ দিয়ে ইনকাম করার সুযোগ পাবেন।

আরও পড়ুন:   বিটকয়েন কি ও কেন Bitcoin কিভাবে কাজ করে

InboxDollars –

এটি এই তালিকার সবচেয়ে জনপ্রিয় অ্যাপগুলির মধ্যে একটি। এটি আপনাকে শুধুমাত্র সার্ভে উত্তর দিয়ে, ভিডিও দেখে এবং ছোট কাজগুলো সম্পূর্ণ করে টাকা উপার্জন করতে দেয়৷ আপনি ইমেল পড়তে বা ওয়েবে সার্চ করার জন্যও অর্থ পেতে পারেন।

InboxDollars এপসে যোগদান করা যায় বিনামূল্যে, কিন্তু তারা কিছু প্রিমিয়াম বৈশিষ্ট্য অফার করে যার জন্য প্রতি মাসে কিছু টাকা আপনাকে খরচ হবে। যে টাকা আপনি খরচ করবেন তার জন্য অতিরিক্ত টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

ক্যাশক্রেট –

আরেকটি জনপ্রিয় অ্যাপ যা আপনাকে সার্ভে করে এবং অনলাইনে কেনাকাটা করে নগদ টাকা উপার্জন করতে দেয়। তাদের কাছে ভিডিও দেখা বা ওয়েবসাইট ভিজিট করার মতো অর্থ উপার্জনের আরও কয়েকটি উপায় রয়েছে।

Swagbucks –

এই অ্যাপটি InboxDollars-এর মতোই যে এটি ভিডিও দেখা বা ইন্টারনেটে সার্ভে নেওয়ার মতো কাজ করার জন্য আপনাকে পুরস্কৃত করে। যদিও ইনবক্সডলারের মতো, তাদের কাছে আপনার অর্থ উপার্জনের অন্যান্য আরও কয়েকটা বেশি উপায়ও রয়েছে।

যার মধ্যে রয়েছে ওয়েবসাইটের তথ্য সার্চ করা বা অ্যামাজন বা টার্গেট করা বিভিন্ন কোম্পানির রিভিউ লেখা ইত্যাদির মতো কাজ। এখান থেকে ইনকাম করা টাকা দিয়ে অনলাইনে কেনাকাটা করা…যায়।

Advertisement

ব্লগিং, এফিলিয়েট, রিসেলার ও ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য যোগাযোগ করুন। আমাদের এফিলিয়েট লিঙ্ক থেকে যেকোনো কোম্পানির কাছ থেকে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করলে ফ্রি সাপোর্ট! বিস্তারিত জানতে WhatsApp এ মেসেজ করুন।

WhatsApp এ মেসেজ করুন

মন্তব্য করুন