বাংলাদেশের সকল পাইকারি বাজারের ঠিকানা ও টিপস

বাংলাদেশের মধ্যে যারা নতুন উদ্যোক্তা হিসেবে নিজের ব্যবসা শুরু করতে চান, তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলটি সাহায্য করবে। এই লিখাতে আমি আপনাদের জন্য বাংলাদেশের সকল পাইকারি বাজারের ঠিকানা ও কিছু টিপস শেয়ার করব। যার মাধ্যমে আপনারা একজন নতুন উদ্যোক্তা হিসেবে নিজের ব্যবসা শুরু করার জন্য

Advertisement
Google News Ad Google News Ad
পাইকারি দামে যে কোন প্রোডাক্ট সংগ্রহ করতে পারবেন।

পাইকারি ব্যবসা শুরু করার জন্য আমরা প্রথমেই যেই বাধার সম্মুখীন হই, সেটি হচ্ছে কোন এলাকায় আমাদের কাঙ্কিত প্রোডাক্টগুলো পাইকারি দামে বিক্রি করতেছে? সে বিষয়টির সন্ধান না পাওয়া।

যদি আমরা পাইকারি বাজারের সন্ধান পেয়ে যাই, তাহলে যে কোন ব্যবসা শুরু করা আমাদের জন্য সহজ হয়ে যায়।

বাংলাদেশের পাইকারি বাজার

আজকের এই লেখাতে এজন্য আমাদের যারা নতুন উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য আগ্রহী পাঠক রয়েছে, তাদের জন্য সকল তথ্য এবং একটি পিডিএফ বই আপনাদের জন্য শেয়ার করব।

বইটির পিডিএফ সংগ্রহ করার জন্য আপনার ইমেইল দিয়ে আমাদের এই ব্লগ পোষ্টের মধ্যে একটি সুন্দর কমেন্ট লিখে পোস্ট করুন। বইটি সরাসরি এখানে পাবলিকলি শেয়ার করাটা অন্যায় হবে। এই জন্য আমরা সরাসরি আমাদের এই ওয়েবসাইটে বইটি শেয়ার করতে পারছি না।

আপনি যে ইমেইল এর মাধ্যমে আমাদেরকে কমেন্ট করবেন, সেই ইমেইলেই আমরা পাইকারি বাজারের পিডিএফ বইটি আপনাকে ইমেইল করে দিব।

পাইকারী দামে পাঞ্জাবির বাজার:

ছেলেদের পছন্দের তালিকায় পাঞ্জাবির সবসময় এক নাম্বারে থাকে। ঈদ হোক অথবা যে কোন অনুষ্ঠানে পাঞ্জাবি পড়তে বেশি সাতসন্দ বোধ করেন ছেলেরা। এজন্য ছেলেদের পাইকারি পাঞ্জাবির ব্যবসা করতে চাইলে আপনাকে যেতে হবে ঢাকার সদরে।

আরও পড়ুন:   ড্রপশিপিং ব্যবসা: Online Business এ লাভজনক উদ্যোগ

সদরঘাটের সাথেই পাটুয়া তুলিতে অবস্থিত “মুনমু কমপ্লেক্স-2nd Floor”থেকে ও দেশি বিদেশি পাঞ্জা বি , শেরওয়ানী, পাঞ্জাবি বানানোর থান কাপড় পাইকারিতে সোর্সিং করতে পারবেন।

সামনে ঈদকে টার্গেট করে আপনি অনলাইনেও এ ধরনের একটি অনলাইন বিজনেস শুরু করতে পারেন। এখান থেকে পাইকারি দামে পাঞ্জাবি সংগ্রহ করে ব্যবসা করতে পারবেন।

কম টাকার মধ্যে অনলাইন বিজনেস শুরু করার জন্য যেকোনো ধরনের অনলাইন ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য আমাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন।

রেডিমেড শার্ট এর পাইকারি বাজার

স্টাইলিশ ছেলেরা নিয়মিত বিভিন্ন ধরনের শার্ট পরতে পছন্দ করেন। এক্ষেত্রে আপনি আপনার টার্গেট বেস ক্রেতাদের জন্য কিছু পাইকারি শার্ট সংগ্রহ করে অনলাইন অথবা অফলাইনের মাধ্যমে আপনার বিজনেস শুরু করতে পারেন।

ঢাকার কেরানীগঞ্জের মধ্যেই আপনি পাইকারি দামের সকল শার্টের বাজার পেয়ে যাবেন। এখানে আপনি হাই কোয়ালিটির ইন্ডিয়ান রেডিমেড শার্ট এর সন্ধান পাবেন। পাইকারি দামে এখান থেকে ইন্ডিয়ান শার্ট ও দেশীয় বিভিন্ন নামী দামী ব্রান্ডের শার্ট রেডিমেড ক্রয় করার মাধ্যমে খুচরা বিক্রয় করে এখান থেকে ভালো প্রফিট করতে পারবেন।

সারা বছরেই শার্টের চাহিদা ভালো থাকে। এজন্য আপনি অনলাইন অথবা অফলাইনের মাধ্যমে শার্টের ব্যবসা করে এখান থেকে উপকৃত হতে পারেন।

শুধুমাত্র টি-শার্টের পাইকারি ব্যবসার বাজার:

সাধারণত বাংলাদেশের মধ্যে t-shirt ব্যবসাটি পুরাতন একটি ব্যবসা। এ ব্যবসা খুবই লাভজনক কিন্তু অনেকেই এই ব্যবসা করার কারণে এটি প্রতিযোগিতামূলক একটি ব্যবসা হয়ে উঠেছে। তাই আপনি যদি এই ব্যবসাটি করতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে অনলাইনে অথবা অফলাইনে প্রতিযোগিতামূলক ব্যবসা করার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। সঠিকভাবে মার্কেটিং করতে পারলেই এই ব্যবসা মোটেও কঠিন নয়।

আরও পড়ুন:   Logistics and supply chain management গাইড ও টিপস

কম দামের মধ্যে যারা টি-শার্ট ক্রয় করে ব্যবসা করতে চান, তাদের জন্য ঢাকা-বঙ্গ বাজার হচ্ছে আদর্শ একটি জায়গা। ঢাকা বঙ্গ বাজার থেকে আপনারা পাইকারি দামে টি-শার্ট ক্রয় করার মাধ্যমে অনলাইন এবং অফ লাইনের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন।

থ্রি পিস এর পাইকারি বাজারের সন্ধান:

বাঙালি মেয়েদের কাছে থ্রি পিস খুবই পছন্দ নিয়ে একটি কাপড়। এই কাপড় বিক্রি করে আপনি খুব ভালোই লাভবান হতে পারেন। এটি বিক্রি করার জন্য আপনি একজন ফেরিওয়ালা হতে পারেন, অথবা আপনি সরাসরি অনলাইনের মাধ্যমে সেল করতে পারেন।

বর্তমান সময়ে থ্রি পিস বিক্রির জন্য অনলাইন সবচেয়ে ভালো একটি মাধ্যম। নিজের একটি ওয়েবসাইট করার মাধ্যমে সুন্দর সুন্দর কিছু থ্রি পিস ক্যাটালগ আপলোড করার মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে এখান থেকে ইনকাম করতে পারেন।

প্রাথমিকভাবে এই ব্যবসাটিকে পরিচিত করার জন্য পেইড বিজ্ঞাপনে কিছু টাকা খরচ করতে হয়।

যদি আপনার একটি ভালো গ্রাহক বেস তৈরি হয়ে যায়, তাহলে পরবর্তীতে আপনি বিজ্ঞাপনের খরচ ছাড়াই ক্রেতাদের খুঁজে পাবেন এবং এখানে থ্রি পিস বিক্রি করার মাধ্যমে খুব ভালো লাভবান হতে পারবেন।

পুরান ঢাকার ইসলামপুরে মেয়েদের সবচেয়ে পছন্দের কাপড় পাইকারি দামে বিক্রি করা হয়, আপনি যদি মেয়েদের 3 Pieces এর ব্যবসা করতে চান, তাহলে আপনাকে ঢাকার ইসলামপুরে গিয়ে পাইকারি দামে থ্রি পিস সংগ্রহ করতে হবে।

ছোট বাচ্চাদের কাপড়ের পাইকারি বাজারের তথ্য

ছোট বাচ্চাদের জন্য যে কোন কেনাকাটায় মা-বাবারা একটু কনসিডার করে না। এক্ষেত্রে আপনি যে দামটা ধরে দিবেন, ভালো প্রোডাক্ট দেওয়ার মাধ্যমে সে দামটাই মা-বাবার কাছ থেকে নিতে পারবেন।

আরও পড়ুন:   সফল ই কমার্স ওয়েবসাইট তৈরির টিপস: ব্যবসায়ীর গাইডলাইন- 2023

সুতরাং বলা যায় ছোট বাচ্চাদের কাপড়ের ব্যবসা আইডিয়াটি একেবারেই মন্দ নয়। আপনি যদি ছোট বাচ্চাদের কাপড়ের পাইকারি বাজারের সন্ধান চান, তাহলে আপনাকে ঢাকা সদরঘাট এলাকাতে চলে যেতে হবে।

ঢাকার সদরঘাট এলাকাতে পাইকারি দামের বাচ্চাদের জামা কাপড় বিক্রি করা হয়। এখান থেকে আপনি খুবই কম দামে বাচ্চাদের জামা কাপড় সংগ্রহ করে মাধ্যমে পুনরায় সেগুলো আপনার এরিয়াতে অথবা নিজের একটি দোকানে অথবা অনলাইনের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারবেন।

পাইকারি বাজার সম্পর্কিত আপনাদের সুন্দর সুন্দর কমেন্ট গুলো এই আর্টিকেলটির কমেন্ট সেকশনে দিয়ে লিখুন। কমেন্টগুলো এই আর্টিকেলটিকে আরো সুন্দর্য বৃদ্ধি করতে এবং তথ্যবহুল করতে সহায়তা করবেন।

যারা পাইকারি ব্যবসার ই-বুক পেতে চান, তারা অবশ্যই কমেন্ট করে নিজের একটি সঠিক ব্যবহার করবেন। ব্যবসা সম্পর্কিত সকল তথ্যের জন্য আমরা আপনাদের সহযোগিতা করব।

Advertisement

ব্লগিং, এফিলিয়েট, রিসেলার ও ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য যোগাযোগ করুন। আমাদের এফিলিয়েট লিঙ্ক থেকে যেকোনো কোম্পানির কাছ থেকে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করলে ফ্রি সাপোর্ট! বিস্তারিত জানতে WhatsApp এ মেসেজ করুন।

WhatsApp এ মেসেজ করুন

“বাংলাদেশের সকল পাইকারি বাজারের ঠিকানা ও টিপস”-এ 74-টি মন্তব্য

  1. আমি এই ব্লগ এর সারমর্ম দেখেই বুঝতে পারছি বইটি সকল উদ্যোক্তাদের জন্য একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ হবে।
    এই অবস্থায় আমিও এই বইটির এক কপি চাইছি। আশা করি, ভবিষ্যতে এই বইটি অনেক উদ্যোক্তা নির্মাণ করবে এবং দেশের অর্থনৈতিক চাকা আরো বেশি সচল করবে।

    জবাব
  2. অবশেষে ই-বুক টি পেয়েছি, ধন্যবাদ Tawhid ভাই, অনেক উপকৃত হলাম। আল্লাহ আপনাকে উত্তম প্রতিদান দান করুক।

    জবাব
  3. পিডিফ বইটি চেয়ে কমেন্ট করার পর,তওহীদ ভাই ইমেইলে আমাকে বইটি পাঠিয়েছেন।ভাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ।বইটি আমি বুঝে পেয়েছি।

    জবাব

মন্তব্য করুন