বাংলাদেশের ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি

অনলাইন ব্যবসার জন্য শক্তিশালী একটি ওয়েবসাইট অপরিহার্য। নিজের অনলাইন ব্যবসা প্রতিষ্ঠার শুরু করার মৌলিক পদক্ষেপগুলোর মধ্যে একটি হল একটি ডোমেন নাম এবং নির্ভরযোগ্য হোস্টিং রেজিষ্ট্রেশন করা৷ আপনি যদি বাংলাদেশে থাকেন এবং সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি খুঁজে থাকেন, তাহলে এই রিভিউটি সম্পূর্ণ পড়ুন।

এই রিভিউতে, আমরা বাংলাদেশের সেরা ৫টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নিয়ে আলোচনা করব। যারা ভালো, জনপ্রিয়, ব্যতিক্রমী, কম দামে এবং নির্ভরযোগ্য ডোমেইন হোস্টিং সেবা প্রদান করে।

সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নির্বাচন করার পদ্ধতি:

বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নিয়ে আলোচনা করার আগে, আসুন জেনে নিই সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নির্বাচন৷ করার জন্য কি কি যাচাই করা উচিত তা জেনে নিই।

নির্ভরযোগ্যতা এবং আপটাইম গ্যারান্টি:

একটি ডোমেন হোস্টিং কোম্পানি নির্বাচন করার সময়, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলোর মধ্যে একটি হল নির্ভরযোগ্যতা। আপনি আপনার ওয়েবসাইট 24/7 যদি লাইভ রাখতে চান, হোস্টিং সার্ভিস দাতা একটি উচ্চ আপটাইম গ্যারান্টি অফার করে কিনা তা নিশ্চিত করে নিতে হবে।

কাস্টমার সাপোর্ট:

দ্রুত এবং দক্ষ কাস্টমার সাপোর্ট অপরিহার্য। আপনি বিভিন্ন সময় প্রযুক্তিগত সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন, তাই প্রতিক্রিয়াশীল গ্রাহক সহায়তা আপনাকে সম্ভাব্য মাথাব্যথা থেকে বাঁচাতে পারে।

আমি দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ সহ বিভিন্ন দেশের হোস্টিং সার্ভিস ব্যবহার করে আসছি। আমার একাধিক বায়ারদের জন্য বিজনেস ওয়েবসাইট করতে আমার একাধিক হোস্টিং ক্রয় করতে হয়। একান্তই যদি বাংলাদেশের হোস্টিং ব্যবহার করতে হয় তাহলে যে কোম্পানির সার্ভিস নিতে পারেন তা আপনাদের জানাব। তবে যদি সুযোগ থাকে, তাহলে ভালো একটা ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানির ডোমেইন হোস্টিং ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন:   বাসা-বাড়িতে বিদ্যুৎ বিল কমানোর ১০টি উপায় জেনে নিন

ডোমেইন ও হোস্টিং ক্রয় মূল্য:

হোস্টিং সার্ভিস সরবরাহকারীদের সময়ে সময়ে মূল্য পরিবর্তিত হয়। আপনার বাজেট মূল্যায়ন করে একটা হোস্টিং কোম্পানি নির্বাচন করুন। অনেকে প্রথম দিকে কমদামে ডোমেইন ও হোস্টিং বিক্রি করে, পরবর্তী রিনিউ করার সময় অতিরিক্ত টাকা পেমেন্ট করতে হয়।

আমি এখানে এমন ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি কে রিভিউ করবো যাদের দাম বেশি একটা উঠানামা করে না। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে ভালো সার্ভিস। সার্ভিস যদি ভালো না হয় কম দামে ডোমেইন হোস্টিং দিয়ে কি করবেন! 🤔

অতিরিক্ত ফিচার ও সুযোগ সুবিধা:

ওয়েবসাইট তৈরি করার ক্ষেত্রে, SSL সার্টিফিকেট এবং ইমেল হোস্টিং এর মত অতিরিক্ত সার্ভিসগুলোর জন্য পেমেন্ট করতে হয় কি-না তা যাচাই করা উচিত। এগুলো একটা ব্যবসার ওয়েবসাইটের জন্য অবশ্যই প্রয়োজনীয়।

আমি এখানে বাংলাদেশের এমন ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি রিভিউ করবো, যারা SSL এবং ইমেইল সার্ভিস সম্পূর্ণ ফ্রি-তে দিবে।

বাংলাদেশের ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি

এখন, স্পেসিফিকেশনে আসা যাক। এখানে বাংলাদেশের সেরা ৫টি ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। এই কোম্পানিগুলো শুধুমাত্র বাংলাদেশি উদ্যোক্তাদের জন্য।

১. Hostever: 20X দ্রুত সেরা ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি:

Hostever বেশ কয়েক বছর ধরে একটি বিশ্বস্ত নাম। তারা নতুন ব্যবসায়ীদের এবং অভিজ্ঞ ওয়েবসাইট মালিকদের জন্য উপযুক্ত হোস্টিং সেবা অফার করে। আপটাইম বাংলাদেশের মধ্যে সেরা এবং চমৎকার কাস্টমার সাপোর্টের জন্য অনেক সুনাম রয়েছে Hostever এর।

সবার আগে আমি Hostever দিয়ে কেন শুরু করলাম সেটা আপনাদের বুঝা উচিত। আমার অনেকগুলো ডোমেইন ও বাংলাদেশী ক্লায়েন্টের হোস্টিং রয়েছে Hostever এর কাছে।

এর মূল হলো সবসময় তাদের কাছ থেকে অনেকগুলো জটিল সমস্যার সমাধান পেয়েছি। তারা বন্ধুর মতো আচরণ করে সকল সমস্যার সমাধান দেয়।

আরও পড়ুন:   ভালো কম্পিউটার চেনার উপায়: PC ক্রয় করার আগে জেনে নিন

Hostever এর সকল অফার ও বিস্তারিত জেনে নিন Hostever এ ক্লিক করে

২. Hostseba: বাংলাদেশের মধ্যে জনপ্রিয় ওয়েব হোস্টিং কোম্পানি

Hostseba এর সাশ্রয়ী মূল্য এবং নির্ভরযোগ্য সার্ভিনের জন্য জনপ্রিয়। তাদের ইউজার ফ্রেন্ডলি কন্ট্রোল প্যানেল আপনার ওয়েবসাইট পরিচালনা করার সকল সুবিধা রয়েছে। অহ হ্যাঁ, এই সুবিধা গুলো অবশ্যই Hostever এরও রয়েছে। Hostseba তাদের হোস্টিং প্যাকেজগুলোর সাথে একটি বিনামূল্যের SSL সার্টিফিকও প্রদান করে।

Hostseba এর সকল অফার যাচাই করুন Hostseba তে ক্লিক করে

৩. Cyber Developer BD: বাংলাদেশের সেরা ডোমেন হোস্টিং কোম্পানি

Cyber Developer BD ছোট ব্যবসা এবং স্টার্টআপ এর ওয়েবসাইট তৈরির চাহিদা পূরণের উপর জোর দিয়ে থাকে। তাদের হোস্টিং প্যাকেজগুলো ওয়েবসাইট কে দ্রুত লোড করার জন্য ভালো কাজ করে। তবে Hostever এর হোস্টিং স্পীড সবার থেকে ভালো আমার মনে হয়।

অনেকের কাছে Cyber Developer BD এর সার্ভিস জনপ্রিয় হওয়ার মূল কারণ হচ্ছে। আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইট সেটআপ করতে না জানেন সেক্ষেত্রে তারা আপনাকে একটা ওয়েবসাইট সেটআপ করে দেয়।

যেহেতু তারা ডোমেইন ও হোস্টিং দেওয়ার পাশাপাশি ওয়েবসাইট তৈরির সেবা দিয়ে থাকে, তাই Cyber Developer BD অনেক উদ্যোক্তাদের পছন্দ

৪. IITHost

ITHostWeb তার হাই আপটাইম রেকর্ডের জন্য পরিচিত। তারা উন্নত সকল সুবিধা অফার করে, যা চাহিদাযুক্ত ওয়েবসাইটগুলোর জন্য প্রয়োজন৷

তারা ভালো কাস্টমার সাপোর্ট দেওয়ার জন্য চেষ্টা করে। অন্যান্য সেরা কোম্পানির মতো ITHostWeb তাদের কাস্টমারদের কে ফ্রি টুলস সেটআপ সহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকেন।

আমার তাদের সুন্দর ওয়েবসাইটটা দেখে মনে হয় তারা তাদের ইউজার ফ্রেন্ডলি প্লাটফর্মের জন্য ক্রেতাদের কাছে বেশি জনপ্রিয়। তাদের ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করা সহজ।

IITHost এর সকল অফার ও বিস্তারিত জেনে নিতে IiTHost এ ক্লিক করুন

৫. Diana Host

Diana Host সেরা ও হাই স্পীড হোস্টিং অফার করে। এরা সিকিউরিটির জন্য বেশি প্রধান্য দেয়। সঠিক প্রমাণ ছাড়া কেউ চাইলে ডোমেইন ও সাইট ট্রান্সফার করতে দেয় না। Diana Host এর হোস্টিং পরিষেবাগুলো নির্ভরযোগ্য, এবং স্ট্রং শক্তির প্রতি তাদের দৃঢ় প্রতিশ্রুতি রয়েছে।

আরও পড়ুন:   ৫টি সেরা টিকটক বানানোর সফটওয়্যার ও ব্যবহার টিপস

Diana Host থেকে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করতে এখানে ক্লিক করুন

এই সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানির সার্ভিস কেন নিবেন?

  • মূল্য এবং প্ল্যান: উল্লিখিত প্রতিটি কোম্পানির বিভিন্ন চাহিদা এবং বাজেটের সাথে মানানসই বিভিন্ন মূল্য প্ল্যান রয়েছে। আপনার ওয়েবসাইটের জন্য সেরা ফিট নির্ধারণ করতে একাধিক সুবিধা এবং মূল্য তুলনা করতে ভুলবেন না। যে কোম্পানির সবচেয়ে কম দামে বেশি সুবিধা দিচ্ছে সেই কোম্পানির কাছ থেকে সার্ভিস ক্রয় করুন।
  • কাস্টমার সার্ভিস: প্রতিক্রিয়াশীল কাস্টমার সাপোর্ট আবশ্যক। যেকোনো হোস্টিং কোম্পানির সাপোর্ট দলের সাথে যোগাযোগ করার পরে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করুন। এর মাধ্যমে তারা আপনাকে কেমন সাপোর্ট দিতে পারে তা বুঝতে পারবেন। এখানে বাংলাদেশের ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি কে আমি রিভিউ করেছি। এরা আমার দিক থেকে সেরা সার্ভিস দেয়।
  • আপটাইম এবং নির্ভরযোগ্যতা: প্রতিটি কোম্পানির আপটাইম গ্যারান্টি পরীক্ষা করুন এবং বাস্তব-বিশ্বের পরিস্থিতিতে তাদের নির্ভরযোগ্যতা পরিমাপ করতে গ্রাহকের রিভিউ পড়ুন। আপটাইম ভালো না হলে একটা অনলাইন বিজনেস ভালো করে না। এটার কারণে ওয়েবসাইট বিভিন্ন সময় অফলাইন হয়ে যায়। ওয়েবসাইট অফলাইনে গেলে আপনার কোনো ক্রেতা বা পাঠক আপনার সাইটে ভিজিট করতে পারবে না।
  • অতিরিক্ত সুবিধা: আপনার ওয়েবসাইট উন্নত করতে প্রতিটি হোস্টিং কোম্পানি যে অতিরিক্ত বৈশিষ্ট্যগুলো অফার করে, যেমন ওয়েবসাইট নির্মান করে দেওয়া, SSL সার্টিফিকেট এবং ইমেল হোস্টিং সুবিধা অফার৷

বাংলাদেশের ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নিয়ে আলোচনা

সঠিক ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি নির্বাচন করা আপনার অনলাইন ব্যবসার জন্য গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। এই লেখাতে উল্লিখিত বাংলাদেশের ৫টি সেরা ডোমেইন হোস্টিং কোম্পানি তাদের কাস্টমার কে সেরা সাপোর্ট ও সার্ভিস দেন।

একটি জ্ঞাত পছন্দ করার জন্য আপনার অগ্রাধিকার, বাজেট এবং প্রয়োজনীয়তাগুলো মূল্যায়ন করুন। সঠিক হোস্টিং অংশীদারের সাথে, আপনার অনলাইন যাত্রা আরও মসৃণ এবং আরও সফল হবে।

যেকোনো বিষয়ে জানার জন্য কমেন্ট করুন।

মন্তব্য করুন