OnePlus Nord CE 2 Lite বাংলা রিভিউ – বিস্তারিত তথ্য জেনে নিন

অসাধারণ ইউজার এক্সপেরিয়েন্স নিয়ে বাজারে চলে এলো OnePlus Nord CE 2 Lite মোবাইল ফোন। যদি OnePlus Nord CE 2 Lite ব্যবহার করতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে সম্পূর্ণ বাংলা রিভিউ সময় নিয়ে পড়ে জানতে হবে। তাহলে আপনি OnePlus Nord CE 2 Lite এর বিস্তারিত জানতে পারবেন। 

আশা করছি আপনি ওয়ানপ্লাস এই মোবাইলটি ব্যবহার করে একেবারেই হতাশ হবেন না। কারণ এই মোবাইলটির রিভিউ পড়ে আপনার সিদ্ধান্ত থাকবে আপনি এই মোবাইল ফোনটি করবেন নাকি করবেন না।

OnePlus Nord CE 2 Lite 

বাংলাদেশের মধ্যে এটি অফিশিয়াল লঞ্চ করা হয়েছে তাই যেকোনো ক্রেতারা এই অফিশিয়াল লঞ্চ করা মোবাইল ফোনটি এখন যে কোন দোকান থেকে ক্রয় করতে পারবে। তবে এক্ষেত্রে মোবাইল ফোনটি ফাইভ জি সাপোর্টেড নেটওয়ার্ক সহ আরো আকর্ষণীয় অনেক কিছু যুক্ত করে গ্রাহকদের জন্য নতুন করে বাজারে এসেছে।

ফাইভ জি সাপোর্টেড
ফাইভ জি সাপোর্টেড

এই মোবাইল ফোনটির মূল্য ধরা হয়েছে 29990 টাকা। অর্থাৎ প্রায় 30 হাজার টাকার মধ্যে এই ফোনটি ক্রয় করলে কেমন অভিজ্ঞতা হবে এবং ব্যবহার করে কেমন সুযোগ সুবিধা হবে সে বিষয়ে আপনাদেরকে বিস্তারিত জানাবো।

প্রথমেই আমরা এই ফোনটির ডিজাইন নিয়ে কথা বলবো

যদি আমরা এই ফোনটির ডিজাইন নিয়ে কথা বলি, তাহলে বলা যায় অসাধারণ। এই ফোনটির পেছনের দিকে প্লাস্টিক এর মাধ্যমে ডিজাইন করা হয়েছে এবং সামনের দিকে সচরাচর যে ভাবে গ্লাস ব্যবহার করে ডিসপ্লে ব্যবহার করা হয় সেভাবে ডিজাইন করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন:   ফেসবুক ব্যবহার করার নিয়ম: সামাজিক নেটওয়ার্ক ব্যবহার করার গাইডলাইন
প্লাস্টিক এর মাধ্যমে ডিজাইন
প্লাস্টিক এর মাধ্যমে ডিজাইন

তবে এই গ্লাসটি তে কোন ধরনের প্রটেক্টিভ লেভেল ব্যবহার করা হয়েছে কিনা তা অনলাইনের মাধ্যমে অনেক ঘাটাঘাটি করার পরেও জানা যায়নি। হয় তো বা কোন প্রটেক্টিভ লেভেল এই ফোনটির মধ্যে ব্যবহার করা হয়নি।

এছাড়াও ফোনটি ডিজাইন নিয়ে যদি আরও কথা বলি তাহলে এক পাশে রয়েছে ফিঙ্গার সিস্টেম স্ক্রীন মেনটেনেন্স এবং অপর পাশে রয়েছে ভলিউম কমানো এবং বৃদ্ধি করার জন্য দুইটি বাটন এবং সেইসাথে সিম স্লট ইনপুট করার ব্যবস্থা।

বাসা-বাড়িতে বিদ্যুৎ বিল কমানোর ১০টি উপায় জেনে নিন

এই মোবাইল ফোন টির মধ্যে ২টি সিম ব্যাবহার করা যাবে এবং সাথে নিজের পছন্দমত মেমোরি কার্ড ব্যবহার করতে পারবেন।

সেই সাথে এ মোবাইল ফোনটি তে নিচের দিকে c-type ইউএসবি চার্জার পোর্ট ব্যবস্থা এবং হেডফোন কানেকশন করার পোর্ট রয়েছে।

OnePlus Nord CE 2 Lite ইউজার এক্সপেরিয়েন্স

এই ফোনটিতে যেহেতু ভালো মানের একটি ডিসপ্লে সংযুক্ত করে দেওয়া হয়েছে এবং ডিসপ্লের আলো খুবই ভালো এবং Smooth ভাবে এই ফোনটি স্ক্রল করা সম্ভব। এবং কোন ধরনের স্লো কাজ করছিল না এই ফোনটি।

আমার মনে হচ্ছিল গেমিং এর জন্য এই ফোনটি অসাধারণ। কারণ এখানে খুব সহজভাবে হাই কোয়ালিটির গেমগুলোকে ব্যবহার করা যাচ্ছিল।

এবার কথা বলব OnePlus Nord CE 2 Lite এর ভার্সন নিয়ে

এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ১১ ভার্সন এর সফটওয়্যার যেগুলো খুবই স্মার্ট ভাবে কাজ করে। এবং আপনি ইচ্ছামত এখানে আপনার পছন্দ অনুযায়ী সফটওয়্যারগুলোকে খুব সহজেই ইন্সটল করতে পারবেন। 

যেহেতু এই ফোনটির দ্রুতগতির প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে তাই OnePlus Nord CE 2 Lite ফোনটিতে ব্যবহৃত সফটওয়্যার গুলোকে খুব দ্রুত রান করা সম্ভব হয়।

আরও পড়ুন:   নতুনদের জন্য ১০টি মোবাইল ভিডিওগ্রাফি টিপস

টেসলার থেকে ভালো চালকবিহীন গাড়ি নিয়ে আসছে অ্যাপল, হবেনা বমি

এখানে 5g প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে তাই ফোনটির পারফরম্যান্স নিয়ে কোন ধরনের সন্দেহ করার কিছু নাই। এবং এই ফোনটির পারফরম্যান্স থাকবে 98 শতাংশ।

8 জিবি রেম এবং 128gb রোম
8 জিবি রেম এবং 128gb রোম

এই ফোনটিতে 8 জিবি রেম এবং 128gb রোম ব্যবহার করা হয়েছে। যার ফলে অনেক ভালো পারফর্মেন্স এখান থেকে পাওয়া যাচ্ছে। এবং সেইসাথে 128gb রম এর কারণে এখানে মেমোরি কার্ড ব্যবহার না করলেও চলবে, সেইসাথে 8gb রম এর কারণে আপনার চাহিদা অনুযায়ী একাধিক সফটওয়্যার মুহূর্তের মধ্যে রান করা যায়। অর্থাৎ আপনি মাল্টিটাস্কিং এর জন্য এই ফোনটি খুব সহজে ব্যবহার করতে পারবেন।

OnePlus Nord CE 2 Lite ক্যামেরা রিভিউ

সবকিছুতেই অনেক ভালো পারফরম্যান্স ছিল কিন্তু সেকশনে এসে আমি একটু হতাশ হয়েছিলাম। কারণ এখানে যে ক্যামেরা ব্যবহার করা হয়েছে তাতে 4k সিস্টেমের কোন সুবিধা ছিল না। অর্থাৎ 4K কোন ধরনের রেকর্ড করার সুবিধা ছিল না। 

সেই সাথে ছবিগুলো বিভিন্ন সময় একটু বেশি লাইট হয়ে যাচ্ছিল যে লাইট সিস্টেম টা আসলেই ছবিতে বেশি মানানসই হচ্ছিল না। তবে রাতের দিকে যদি আপনার ছবি উঠান, তাহলে খুবই ভালো দেখাচ্ছিলো। 

5g প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে
5g প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে

দিনের বেলায় ছবিগুলোকে একটু অতিরিক্ত লাইট করে ফেলার ফলে একটু বেশি আলো হয়ে যাচ্ছিল। সব মিলিয়ে ক্যামেরা সেকশনে এসে আমি একটু হতাশ হওয়ার কারণ হচ্ছে ভালো ক্যামেরা সিস্টেম মোবাইল ফোনে যুক্ত করা হয় নাই। তবে আমার মনে হয়েছে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে মোবাইল ফোনটিতে ক্যামেরার মধ্যে অনেক ভাল পারফর্ম যুক্ত করা উচিত ছিল।

আরও পড়ুন:   কম দামে পিসি: কয়েকটি ভালো কম্পিউটার দাম - বেস্ট কম্পিউটার প্রাইস

তবে ডাইনামিক রেঞ্জার ছবিগুলোর পারফরম্যান্স ভালো ছিল। যদি আপনি ছবিগুলোকে একটু ভালোভাবে মেনটেন করে ক্যাপচার করতে পারেন, তাহলে অবশ্যই কোনটির মাধ্যমে আপনি ভালো ছবি ক্যাপচার করতে পারবেন।

এবার এই ফোনটির ব্যাটারি নিয়ে কথা বলবো

ব্যাটারির সেকশনে এসেও আমি অনেক ভালো আনন্দিত হলাম। কারণ হচ্ছে এই ফোনটিতে যে ব্যাটারি ব্যবহার করা হয়েছে তার 5000mh ব্যাটারি। 

যেটা পুরা দিন আপনাকে সাপোর্ট দিবে এবং আপনি একাধিক মাল্টিটাস্কিং না করে যদি ফোনটি ব্যবহার করে থাকেন, তাহলে এই ফোনটি আপনার স্বাভাবিকভাবে দুই দিনের বেশি আপনাকে ব্যাটারি কভার করবে।

১০ হাজার টাকার মধ্যে শাওমি মোবাইল

এবং সেইসাথে এই ফোনটি চার্জিং এর জন্য ফাস্ট চার্জিং ক্যাবল এবং এডাপ্টার দেওয়া হয়েছে। যার ফলে আপনি খুব দ্রুত মোবাইলটিতে সার্চ করতে পারবেন এবং ব্যাটারি পারফরমেন্সে ছিল অত্যন্ত ভালো। যার মাধ্যমে আপনি পুরা দিন এই ফোনটিতে ব্যাকআপ পাবেন।

5000mh ব্যাটারি
5000mh ব্যাটারি

পরিশেষে ফোনটি নিয়ে যদি একটি সামারি আমি বলতে চাই তাহলে এই ফোনটির রিভিউ হল ইউজার এক্সপেরিয়েন্স ছিল অত্যন্ত ভালো। তবে ক্যামেরার দিক থেকে একটু মনে হয়েছে পারফরম্যান্স ভালো হয় নাই। তবে আপনি চাইলে এই ফোনটি ৩০,০০০ টাকার মধ্যে ক্রয় করতে পারেন। 

আমার মনে হয়েছে ৩০ হাজার টাকার মধ্যে এই ফোনটি অনেক ব্যয়বহুল তবে এই ফোনটি যদি আরেকটু কম হতো তাহলে সবচেয়ে ভালো হতো। এবং ইউজাররা ব্যবহার করে আরো বেশি আনন্দিত হত ক্যমেরাতে যদি বিষয় টাকে আরো উন্নত করা হতো। 

এখন এই ফোনটি ক্রয় করবেন নাকি করবেন না সেটা তো আপনার উপরে। যেহেতু আপনি একজন ইউজার হিসেবে এই ফোনটি ব্যবহার করবেন।

মন্তব্য করুন