নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার ও মুনাফা | Nagad Mobile Banking

বর্তমান সময়ে টাকা সঞ্চয় করা খুবই সহজ। আপনি চাইলে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যমে খুব সহজে টাকা সঞ্চয় করতে পারেন। যদি আপনি Nagad Mobile Banking এর মাধ্যমে টাকা সঞ্চয় করতে চান, তাহলে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার সম্পর্কে আপনার জানা প্রয়োজন। এই লিখাটি যদি আপনি সম্পূর্ণ পড়েন, তাহলে Nagad Mobile Banking Savings Rate সম্পর্কে আপনি কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য জানতে পারবেন এবং খুব সহজে আপনি নগদ মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করে আপনার টাকা সঞ্চয় করতে পারবেন। আপনার সঞ্চয় কৃত টাকা থেকে আপনি প্রতিমাসে সঞ্চয় হার হিসেবে মুনাফা উপার্জন করতে পারবেন।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার কি?

সহজ কথায় আপনি যদি Nagad অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে টাকা সঞ্চয় করেন। নগদ মোবাইল ব্যাংকিং কর্তৃপক্ষ আপনাকে আপনার জমাকৃত টাকার উপরে নির্দিষ্ট কিছু অংশ মুনাফা প্রদান করে থাকেন। এই মুনাফাকে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং এর ভাষায় ব্যাংকিং সঞ্চয় হার বলা হয়।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার কি
ব্যাংকিং সঞ্চয় হার

অর্থাৎ আপনি যদি নগদে টাকা সঞ্চয় করেন, তাহলে এখান থেকে কত হারে আপনি মুনাফা পাবেন? সে বিষয় সম্পর্কে যদি আপনার প্রশ্ন থাকে, তাহলে এটাই হচ্ছে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার সম্পর্কে আপনার অজানা প্রশ্নের উত্তর সম্পর্কিত আর্টিকেল।

আরও পড়ুন:   ঘরে বসে টাকা আয় করতে চাই টিপস ও ট্রিকস - ২০২৩

Cash Mobile Banking কত সঞ্চয় হারে কত টাকা মুনাফা পাওয়া যাবে?

নগদ থেকে যদি আপনি মুনাফা পেতে চান, তাহলে আপনাকে অবশ্যই 1001 টাকার উপরে আপনাকে সঞ্চয় করতে হবে। অনেকে মনে করে থাকেন যেকোন একটি অ্যামাউন্ট জমা রাখলে, তার উপরেই নগদ মুনাফা প্রদান করে থাকেন। মূলত আপনি যদি 1001 টাকার উপরে সঞ্চয় করেন, তাহলে আপনি মুনাফা পাবেন। এমনকি যদি আপনি 1000.99 পয়সা জমা রাখেন, তাহলেও কিন্তু এখান থেকে আপনি মুনাফা পাবেন না।

১০টি বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা ও শুরু করার উপায়

Read more

সহজ কথায় আপনাকে যেটা বোঝাতে চাচ্ছি, সেটা হচ্ছে। যখন আপনার একাউন্টে 1001 টাকার উপরে জমা থাকবে, তখন আপনি নগর থেকে মাসিক হারে মুনাফা পাবেন। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, Nagad মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার কত টাকায় কত পার্সেন্ট দেয়?

জেনে নেওয়া যাক নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার কত? | What is the Nagad mobile banking savings rate?

1001 টাকা থেকে 5 হাজার টাকা পর্যন্ত নগদ আপনাকে দিচ্ছে 5 শতাংশ পর্যন্ত নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার। আর যদি আপনি 5000 থেকে তিন লক্ষ টাকা পর্যন্ত জমা রাখেন, তাহলে আপনি 7% করে নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় থেকে মুনাফা পাবেন। 

টাকা সঞ্চয় রাখার পরেও কারা মুনাফা পাবেন না? | Who will not get profit even after saving money?

আপনি নগদে দুই ধরনের অ্যাকাউন্ট করতে পারবেন। একটি হচ্ছে ইসলামিক শরিয়া একাউন্ট। আরেকটা হচ্ছে সাধারন একাউন্ট। আপনি যদি সাধারন একাউন্ট করে থাকেন, তাহলে আপনি নগদ থেকে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সঞ্চয় হারে নির্দিষ্ট একটি মুনাফা পাবেন।

আরও পড়ুন:   বিকাশ থেকে টাকা ইনকাম করার ৩টি উপায়

কিন্তু যদি আপনি ইসলামিক শরিয়া একাউন্ট করে থাকেন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে কোন ধরনের মুনাফা আপনি পাবেন না। অর্থাৎ আপনি যদি আপনার একাউন্টে নগদ এর বৈশিষ্ট্য মোতাবেক নির্দিষ্ট পরিমান টাকা সঞ্চয় করেন। আপনি শুধুমাত্র আপনার সঞ্চিত টাকা ফেরত পাবেন।

সঞ্চয় রাখার পরেও কারা মুনাফা পাবেন না
সঞ্চয় রাখার পরেও কারা মুনাফা পাবেন না

এক্ষেত্রে আপনি আপনার টাকার উপরে কোন ইন্টারেস্ট পাবেন না। সাধারণত এই পদ্ধতিটি ইসলামিক ব্যাংক গুলো অনুসরণ করে থাকে।

২০২২ সালে কিভাবে টাকা উপার্জন করা যায়

Read More

অর্থাৎ ইসলামিক ব্যাংক গুলোতে যদি আপনি এই ধরনের অ্যাকাউন্ট করে থাকেন, তাহলে আপনি আপনার সঞ্চিত টাকার উপরে নির্দিষ্ট পরিমাণ কোন টাকা আপনি মুনাফা হিসেবে দাবি করতে পারবেন না। ঠিক এই পদ্ধতিটি নগদ তাদের লেনদেনের মধ্যে অব্যাহত রেখেছে। যেন গ্রাহকরা এখান থেকে ইসলামিক শরীয়া মোতাবেক সুবিধাটিও উপভোগ করতে পারেন।

নগদ কখন মোবাইল ব্যাংকিং এর সঞ্চয় হার প্রদান করে থাকেন?

প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর নগদ আপনার সঞ্চয়কৃত টাকার মুনাফা প্রদান করে। অর্থাৎ আপনি যদি নগদ একাউন্টে আপনার টাকা সঞ্চয় করেন, তাহলে প্রতি তিন মাসে আপনি একবার আপনার সঞ্চয় কৃত টাকার মুনাফা পাবেন। এক্ষেত্রে আপনি কত টাকা জমা রেখেছেন? সেই টাকার উপরে আপনাকে নির্দিষ্টভাবে হিসাব করতে হবে। যেভাবে নগদ থেকে আপনাকে বলা হয়েছে।

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার ও মুনাফার হিসাব
নগদ মোবাইল ব্যাংকিং মুনাফা

তবে হিসাব করাটা আপনার জন্য জরুরী নয়। কারণ নগদ আপনার হয়ে প্রতি মাসে টাকা হিসাব করে প্রতি তিন মাস অন্তর অন্তর আপনাকে নির্দিষ্ট পরিমাণ হার আপনার একাউন্টে যুক্ত করে দিবে। যেটি থেকে আপনি ব্যাংকের মতোই একটি মুনাফা অর্জন করতে পারবেন।

আরও পড়ুন:   ঘরে বসে হাতে লিখে আয় করার ৫ টি দারুণ উপায়

নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার ও মুনাফার হিসাব

এই লেখাতে আমরা নগদ মোবাইল ব্যাংকিং সঞ্চয় হার সম্পর্কে আপনাদের জন্য সঠিক কিছু তথ্য তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। যেগুলো থেকে নগদ ব্যবহারকারীরা অবশ্যই উপকৃত হতে পারবে। যদি নগদ সম্পর্কিত আপনাদের আরো কোন প্রশ্ন থাকে। সেই প্রশ্ন গুলো আপনারা আমাদেরকে করতে পারেন। আমরা আপনাদের জন্য সে প্রশ্নগুলোর উপরেই বিস্তারিত আর্টিকেল প্রকাশ করব। যেগুলোর মাধ্যমে আপনারা নগদ সম্পর্কে বিশদ জানতে পারবেন।

ফেসবুকে কিভাবে টাকা আয় করা যায় | ফেসবুক ইনকাম – ২০২২

Read More

আশাকরছি নগদ মুনাফা / Nagad Mobile Banking Savings Rate সম্পর্কে আপনারা সবাই অবগত আছেন। এবং যদি আপনারা সঞ্চয় করেন, তাহলে সে সঞ্চয় আপনার জন্য পরবর্তীতে অনেক বড় একটি আর্থিক সম্বল হিসেবে পরিণত হবে।

এজন্য নগদ এর মাধ্যমে খুব সহজেই আপনাদের টাকা সঞ্চয় করতে পারেন। যেন ভবিষ্যতে সঞ্চয় কৃত টাকা গুলো ব্যবহার করে আপনারা এখান থেকে লাভবান হতে পারেন। আশা করছি আমাদের লেখাটির আপনারা সুন্দরভাবে বুঝতে পেরেছেন। এবং লেখাতে কোন কিছু না বুঝলে আমাদেরকে আমাদের লেখা সম্পর্কে আপনাদের মতামত জানিয়ে উন্নত করার জন্য সহায়তা করবেন। ধন্যবাদ!

Leave a Comment