ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার ৩টি সিএমএস ও টিপস

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন? বিস্তারিত জেনে নিন। এখনকার ডিজিটাল যুগে, ব্যক্তিগত এবং ব্যবসার জন্য শক্তিশালী অনলাইন পরিচিতি থাকা অপরিহার্য। আপনি একজন নতুন উদ্যোক্তা হোন, বা একটি প্রতিষ্ঠানের কাজ করছেন, বা আপনার ব্যবসা প্রসারিত করার জন্য একটি ছোট ব্যবসার মালিক হিসেবে কাজ করছেন এমন হয়, আপনাকে বুঝতে হবে ভাল ওয়েবসাইট তৈরি আপনার সাফল্যের চাবিকাঠি।

এমন অনেকগুলো প্ল্যাটফর্ম হয়েছে, যেগুলোর মাধ্যমে আপনি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। যদিও ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরির ক্ষেত্রে একটু লিমিটেশন রয়েছে তাও আপনি ফ্রিতেই আপনার ব্র্যান্ডিং করতে পারবেন।

বিনামূল্যে ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি এর চাহিদা:

ইন্টারনেটের ব্যবহারের চাহিদা বাড়ার সাথে সাথে ওয়েবসাইট তৈরির চাহিদাও বৃদ্ধি পেয়েছে। কারণ ওয়েবসাইট তৈরি করার মাধ্যমে অনলাইনে নিজের যেকোনো ব্যবসা, অথবা নিজেকে অন্যান্যদের কাছে তুলে ধরার জন্য যথেষ্ট ভূমিকা পালন করে।

একসময় যেহেতু একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা ব্যয়বহুল ছিল, এইজন্য ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করার আগ্রহ বেশি ছিল। কিন্তু বর্তমান সময়ে খুব অল্প টাকা খরচ করার মাধ্যমে একটি প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়।

ফলে ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরির চেয়ে মানুষ কিছু টাকা বিনিয়োগ করার মাধ্যমে নিজের অনলাইন ব্যবসা শুরু করতে, অথবা নিজের পরিচিতি বৃদ্ধি করতে প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট তৈরি করতে পছন্দ করেন।

আরও পড়ুন:   Affpilot AI দিয়ে Adsense ও Ezoic এপ্রুভ করার ৫টি টিপস

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি এর প্রয়োজনীয়তা:

যদি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান, তাহলে আপনাকে প্রথমেই ওয়েবসাইট তৈরির প্রয়োজনীয়তা বুঝতে হবে। এর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করলে, সেখান থেকে আপনি লাভবান হতে পারবেন কিনা।

কেননা ফ্রিতে যে ওয়েবসাইটি তৈরি করবেন, সেটি আপনার ফোর্টফলিও তৈরি করতে, অথবা ব্যবসার প্রচার, অথবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তৈরি করার জন্য এটি কতটা ভূমিকা রাখবে! সে বিষয়টি আপনাকে জানতে হবে।

এর কারণ হচ্ছে আপনি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করলে, সে ওয়েবসাইটকে সঠিকভাবেই অপটিমাইজ করতে পারবেন না। যদি আপনি মনে করেন আপনার অতিরিক্ত কোন ফিচারের প্রয়োজন নেই। লিমিটের মধ্যেই একটি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করলেই চলবে, তাহলে আপনি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন।

৪টি জনপ্রিয় সিএমএস যা ওয়েবসাইট তৈরির জন্য সাহায্য করবে:

কথা হচ্ছে আমরা যদি একটি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে যাই, তাহলে আমাদেরকে যেকোনো একটি ভালো সিএমএস ব্যবহার করতে হবে। এক্ষেত্রে কোন সিএমএস টি সবচেয়ে ভালো সে বিষয়টি জানার জন্য আমাদেরকে এই প্ল্যাটফর্ম গুলো ব্যবহার করার মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হবে।

এখানে আমি ৪টি সিএমএস আপনাদের সাথে শেয়ার করব। যার মধ্যে ওয়ার্ডপ্রেস হচ্ছে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং এডভান্স। তবে একটা বিষয় বলতেই হয়, যদি আপনি ফ্রিতেই ওয়েবসাইট করতে যান, তাহলে ব্লগার হচ্ছে আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে।

  • Blogger
  • WordPress
  • WIX

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার ধাপসমূহ:

ইন্টারনেটের যুগে বর্তমান সময়ে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা খুবই সহজ বিষয়। আপনি আপনার মোবাইল অথবা কম্পিউটার থেকেই উপরে বর্ণিত সিএমএস গুলোর মাধ্যমে একটি ইমেইল এবং নাম রেজিষ্ট্রেশন করুন। আপনার ব্রান্ড নাম দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করার মাধ্যমে সহজেই আপনার জন্য একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে ফেলতে পারেন।

আরও পড়ুন:   ওয়েবসাইট তৈরি করার ১১টি প্রয়োজনীয় নিয়ম

ওয়েবসাইটটি তৈরি করার পরেই আপনাকে কাস্টমাইজেশনের কাজ করতে হবে। এর জন্য আপনাকে সুন্দর এবং গ্রহণযোগ্য একটি WordPress Theme বা অন্যান্য সিএমসের জন্য Beautiful Template বাছাই করে ইন্সটল করতে হবে।

যে Theme বা Template ইন্সটল করবেন, সেটিতে যে সকল সেটিংস গুলো রয়েছে, সেগুলো সঠিকভাবে অপটিমাইজ করার মাধ্যমে আপনার জন্য একটি সুন্দর ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি সম্পর্কিত সারমর্ম:

সম্মানিত পাঠক, আমরা আপনাদের জন্য এই লেখাতে ফ্রিতে কিভাবে আপনার জন্য একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। এবিষয়ে কিছুটা ধারণা দিয়েছি। মূল বিষয় হচ্ছে ফ্রিতেই কোন কিছুতেই আসলে সঠিকভাবে চাহিদা পূরণ হয় না।

আপনি যদি একটি প্রিমিয়াম ওয়েবসাইট করেন, সে ক্ষেত্রে আপনি আপনার ব্যবসা এগিয়ে নেওয়ার পাশাপাশি ভালো ইনকাম করার জন্য একাধিক উপায় ও ব্যবহার করতে পারবেন।

যদিও আমরা এই লিখাটি লিখেছি ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি সম্পর্কে। তারপরও আপনাদেরকে পরামর্শ দিব যদি আপনাদের সামান্যতম বিনিয়োগের সুযোগ থাকে, তাহলে বিনিয়োগ করার মাধ্যমে ভালো একটি ওয়েবসাইট তৈরি করুন। ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইট সিএমএস ব্যবহার করলে সবচেয়ে ভালো সুবিধা পাবেন।

2 thoughts on “ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার ৩টি সিএমএস ও টিপস”

Leave a Comment