মজাদার এগ স্যান্ডউইচ রেসিপি

আসসালামু আলাইকুম। আপনারা সবাই কেমন আছেন বন্ধুরা? আশা করি ভালো আছেন। আপনাদের দয়ায় আমিও ভালো আছি। আজ আমি আপনাদের জন্য নিয়ে আসছি এক সম্পূর্ণ নতুন ধরনের নাস্তার রেসিপি। আশা করি রেসিপিটা পড়ে আপনাদের ভালো লাগবে। আজকে আমি আপনাদের বলে দিব কিভাবে এগ স্যান্ডউইচ তৈরি করতে হয়।

এই রেসিপিটা আপনাদের বাড়ির ছোট বড় সবার জন্য পারফেক্ট নাস্তা হবে। এছাড়াও বাড়ির ছোট বাচ্চাদের স্কুলের টিফিন হিসেবেও দিতে পারেন। সাধারণত আমাদের বাড়ির ছোট বাচ্চারা প্রতিদিন একই ধরনের টিফিন খেতে চায় না।

এইজন্য বাচ্চাদের মন মত ও পছন্দনীয় নাস্তা হিসেবে আপনারা এই স্যান্ডউইচ দিতে পারেন। এই নাস্তাটি বাচ্চারা অবশ্যই পছন্দ করবে। খুব অল্প সময়ের (১০ মিনিট) মধ্যে এই নাস্তাটি তৈরি করতে পারবেন।

এই এগ স্যান্ডউইচ তৈরি করতে আপনাদের বেশি কিছু লাগবেনা। খুবই অল্প উপকরণ দিয়ে আপনারা এই রেসিপিটি তৈরি করতে পারবেন।

এই নাস্তাটি বাড়িতে অতিথি এলে তাদেরকে দিতে পারেন এবং বিকেলের নাস্তা হিসেবেও খেতে পারেন।

তো বন্ধুরা আর দেরি না করে চলুন দেখে নিয় কিভাবে তৈরি করতে হয় অসাধারণ মজাদার এগ স্যান্ডউইচ।

এগ স্যান্ডউইচ তৈরি করতে আমাদের যা যা উপকরণ প্রয়োজন হবে সেই গুলো হচ্ছেঃ

1. পাউরুটি।
2. ডিম
3. লবণ।
4. চিনি।
5. গোল মরিচের গুঁড়ো।
6. গাজর।
7. মেয়োনিজ।

মজাদার এগ স্যান্ডউইচ রেসিপি প্রস্তুতপ্রণালিঃ

1. প্রথমে পাউরুটির চারদিকের শক্ত অংশটুকু সমান করে কেটে নিতে হবে।
2. তারপর তিনটি সিদ্ধ ডিমের সাদা অংশ চুরি দিয়ে কুঁচি কুঁচি করে কেটে নিতে হবে।
3. তারপর মাঝখানের কুসুম গুলো কাটা চামচ দিয়ে গুড়ো করে ডিমের কুঁচি করা সাদা অংশ একসাথে মিশিয়ে নিবেন।

আরও পড়ুন:   দুধ দিয়ে তৈরি অসম্ভব মজাদার ডেজার্ট রেসিপি

4. তারপর এর মধ্যে স্বাদমতো লবণ দিয়ে দিবেন।
5. এরপর এক টেবিল চামচ চিনি আর এক চা-চামচ গোল মরিচের গুঁড়ো দিয়ে দিবেন।
6. তারপর এক কাপ গাজর কুঁচি দিয়ে সবগুলো একসাথে মিশিয়ে অল্প অল্প করে মেয়োনিজ দিয়ে মিশ্রণটা শেষ করবেন।

7. এবার মিশ্রণ করা মাখনটা পাউরুটির উপরে লাগিয়ে উপরে আরেকটা পাউরুটি দিয়ে দিলেই হয়ে যাবে সুন্দর এগ স্যান্ডউইচ।

এই এগ স্যান্ডউইচের রেসিপিটি আপনারা বাড়িতে একবার হলেও ট্রাই করে দেখুন তাহলে বুঝতে পারবেন কতটা মজাদার একটা নাস্তা।

তো বন্ধুরা আর দেরি না করে বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু এগ স্যান্ডউইচ এবং সুন্দর করে সবার মধ্যে পরিবেশন করুন। আজকের মতো বিদায় নিচ্ছি সবাই ভালো থাকবেন।

Leave a Comment