জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

যাদের এখনও জাতীয় পরিচয় পত্র হয়নি, তারা কিভাবে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন? সে বিষয় নিয়ে আজকের এই লেখাতে আমরা আলোচনা করব। অনেকেই আমাদের কাছে জানতে চেয়েছেন, জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম। তাই এই বিষয়টি নিয়ে আমাদের অবশ্যই আলোচনা করতে হচ্ছে। যেন আমাদের পাঠকরা এর সম্পর্কে জানতে পারে।

যদি আপনি এই লিখাটি সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়ে পড়েন, তাহলে আশা করছি আপনাকে বুঝানো সম্ভব হবে। কিভাবে আপনি জন্ম নিবন্ধন দিয়ে আপনার বিকাশ একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। যেহেতু বাংলাদেশের মধ্যে জাতীয় পরিচয় পত্রের মত জন্মনিবন্ধন একটি পরিচয় পত্রের মত ক্ষমতা বহন করে। এই জন্য আপনার জন্ম নিবন্ধন দিয়ে আপনি বিকাশ একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই সঠিক নিয়ম জানতে হবে। কিভাবে আপনি এই জন্ম নিবন্ধন ব্যবহার করে বিকাশ একাউন্ট করতে পারবেন? সে বিষয়ে সম্পর্কে।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম

সাধারণত যাদের জাতীয় পরিচয় পত্র রয়েছে তারা ঘরে বসে খুব সহজেই বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন নিজের এ স্মার্টফোনটি ব্যবহার করে। কিন্তু যাদের জাতীয় পরিচয় পত্র নেই অথবা এখনো হাতে পাননি তারা কিন্তু জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে বিকল্প মাধ্যম ব্যবহার করে প্রয়োজনের ক্ষেত্রে বিকাশ একাউন্ট করতে পারবেন। এক্ষেত্রে জন্মনিবন্ধন ব্যবহার করে অ্যাকাউন্ট করার জন্য আপনাকে একটু জটিলতা কাটিয়ে যেতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ
জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ

যদি মনে করেন, আপনার বর্তমানে একটি বিকাশ একাউন্ট করাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবং এটি আপনার জন্য করাটা বাধ্যতামূলক মনে হয়। সে ক্ষেত্রে আপনি জন্ম নিবন্ধন সনদ দিয়ে বিকাশ একাউন্ট করতে পারবেন। এমনকি আপনি যদি কোনো স্কুল-কলেজে উপবৃত্তি পেয়ে থাকেন এবং সেই স্কুল কলেজ থেকে উপবৃত্তির টাকা বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করা হয়ে থাকেন। তাহলে আপনি খুব সহজেই জন্ম নিবন্ধন দিয়ে বিকাশ একাউন্ট করতে পারবেন।

কিভাবে ফেসবুক থেকে আয় করা যায় | ইনকাম করার ৫টি উপায়

এছাড়াও যদি আপনি একজন ছাত্র না হয়ে থাকেন। এবং কোন জায়গায় যদি উপবৃত্তি না পেয়ে থাকেন। তাহলে জন্ম নিবন্ধন দিয়ে একটি বিকাশ একাউন্ট করার জন্য আপনাকে সরাসরি আপনার জন্ম নিবন্ধন এর আসল কপি এবং ফটোকপি সহ একসাথে আপনার সদ্যতোলা দুই কপি রঙ্গিন পাসপোর্ট সাইজের ছবি। এবং আপনার মা-বাবার যেকোনো একজনের জাতীয় পরিচয় পত্রের কপিসহ আপনার নিকটস্থ যেকোনো একটি বিকাশ সার্ভিস পয়েন্ট এ যেতে পারেন।

আরও পড়ুন:   ২০২৪ সালে আপনার পাঁচটি নতুন বিষয়ে শেখা প্রয়োজন

মনে রাখতে হবে, সাধারণ যে বিকাশ সার্ভিস পয়েন্ট গুলো রয়েছে। এই পয়েন্টগুলোতে গেলে কিন্তু হবেনা। আপনাকে সরাসরি বিকাশের কাস্টমার কেয়ার সার্ভিস গ্রহণ করার জন্য যেতে হবে। সেখানে আপনি তাদেরকে আপনার সমস্যার বিষয়টি বুঝিয়ে বলবেন। এবং কেন আপনার এখনো জাতীয় পরিচয় পত্র হয়নি? সে বিষয়টি তাদেরকে জানাবেন।

যদি আপনার আবেদনটি যথোপযুক্ত হয়, তাহলে আপনি তাদের কাছ থেকে আপনার জাতীয় পরিচয় পত্র ছাড়া জন্ম নিবন্ধন সনদ জমা দিয়ে এবং আপনার পরিবারের যে কারো একজনের জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে নিজের সদ্যতোলা রঙিন দুই কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি জমা দিয়ে আপনার বিকাশ একাউন্ট করিয়ে নিতে পারবেন।

কোথায় টাকা ইনভেস্ট করা যায় | বিনিয়োগ করার সঠিক জায়গা

আশা করছি, এই লিখাটি আপনারা সঠিকভাবে পড়তে পেরেছেন। যদি সঠিকভাবে পড়ে থাকেন, তাহলে আপনারা এখানে কি বুঝানো হয়েছে? সে বিষয়ে বুঝতে পেরেছেন। যদি কোন কিছু আর তারা না বুঝে থাকেন, তাহলে সে বিষয়ে আমাদেরকে অবশ্যই প্রশ্ন করবেন। কোন কিছু না বুঝে এড়িয়ে যাবেন না। কারণ এই আর্টিকেলগুলো আমরা আপনাদেরকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সরবরাহ করার জন্য লিখে থাকি। সুতরাং আমরা চাই আমাদের পাঠকরা আমাদের ব্লগ ওয়েবসাইট থেকে সঠিক তথ্য গ্রহণ করুক।

Advertisement

ব্লগিং, এফিলিয়েট, রিসেলার ও ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য যোগাযোগ করুন। আমাদের এফিলিয়েট লিঙ্ক থেকে যেকোনো কোম্পানির কাছ থেকে ডোমেইন হোস্টিং ক্রয় করলে ফ্রি সাপোর্ট! বিস্তারিত জানতে WhatsApp এ মেসেজ করুন।

আরও পড়ুন:   এসএসসি পরীক্ষার রুটিন ২০২২ | পরিবর্তিত রুটিন
WhatsApp এ মেসেজ করুন

মন্তব্য করুন